1551341987_SIK3890-2f

বিয়ে মানুষের জীবনের একটা অবিচ্ছেদ্য অংশ।  বিয়ের মধ্যে দিয়ে দুজন মানুষের মধ্যে আত্মার সম্পর্ক তৈরির মতবাদ সর্বমহলে গ্রহনযোগ্য। বিয়ের মাধ্যমে দুজন মানুষের জীবনে নতুন অধ্যায়ের সূচনা হয় এবং একটা সামাজিক বন্ধন ও স্বীকৃতির মাধ্যমে পরস্পর সারা জীবনের সঙ্গী হিসেবে একসাথে থাকতে অঙ্গীকারবদ্ধ হয়। যুগ পরিবর্তনের সাথে সাথে বিয়ে নিয়ে মানুষের যেমন কৌতুহূলের শেষ নেই। তেমনি বিয়ের আচার-অনুষ্ঠানে ও এসেছে আধুনিকতা ও নান্দনিকতার ছোঁয়া।

কেউ ঝাকজমকভাবে বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন করতে পছন্দ করেন। কেউ বা স্বল্প পরিসরে ঘরোয়া আয়োজনে পরিবার- পরিজনদের নিয়ে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা করতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন। বিয়ের রীতি নীতিতে ও এসেছে পরিবর্তন। এখন বর-কনে বাছাই করার ক্ষেত্রে ও চলে এসেছে আধুনিকতা। ম্যাটরিমোনিয়াল ওয়েবসাইটগুলো বিয়ে ঠিক করা থেকে শুরু করে অনুষ্ঠানের সব আয়োজন করে থাকেন। আপনি ও যদি বিয়ে নিয়ে জানতে আগ্রহী হন তাহলে সংগেই থাকুন কারন বিয়ের যাবতীয় সকল নানা অজানা বিষয় তুলে ধরব।

বিয়ে কি? 

দুইজন নারী ও পুরুষের মধ্যে তাদের মতামতের ভিত্তিতে দাম্পত্য সম্পর্ক প্রণয়নের বৈধ আইনি ও ধর্মীয় চুক্তি ও তার স্বীকারোক্তিকে বিয়ে বলে।

বিয়ের মৌসুমঃ 

জানুয়ারি থেকে মার্চ মাস কে বিয়ের মৌসুম ধরা হয়। এই মাসেই বাংলাদেশে সব চেয়ে বেশি বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

বিয়ের অংশবিশেষঃ 

বাংলাদেশের সর্বস্থানে বিয়েকে বিয়ে কিংবা বিবাহ বলা হলে ও বিভিন্ন অঞ্চলে এর ভিন্নতা রয়েছে। যেমনঃ বিয়্যা, হিন্দি ভাষায় শাদী, সিলেট অঞ্চলে বলা হয় হেঙ্গা। পূর্বে বিয়ের অংশবিশেষ ছিল গায়ে হলুদ, বিয়ে, এবং ওয়ালিমা বা বৌভাত। কিন্তু বর্তমানে প্রতিবেশী দেশ ভারতের সাথে তাল মিলিয়ে অনেকে বর-কনের  মেহেদি সন্ধা ও পালন করে।

বর-কনে খুঁজতে ম্যারেজ ওয়েবসাইটঃ

বিয়ে করার জন্য সবাই চায় সুদর্শন, যোগ্যতাসম্পন্ন বর-কনে। তবে বিয়ে ঠিক করার ক্ষেত্রে তৃতীয় পক্ষের প্রয়োজন হয়ে থাকে। আগে আত্মীয়-স্বজন অথবা ঘটকের মাধ্যমে বিয়ের মধ্যস্থতা সম্পন্ন হত। তবে এখন সব কিছুতেই যখন আধুনিকতা তখন বিয়ের ক্ষেত্রে ও যোগ হয়েছে নতুন মাত্রা। এখন আপনি ঘরে বসেই বিয়ের জন্য প্রস্তুতি নিতে পারবেন। বিয়ের জন্য বর-কনে খুঁজছেন? যদি তাই হয় তাহলে আপনি ম্যাটরিমোনিয়াল সাইটের সরনাপন্ন হতে পারেন।

বাংলাদেশে বিভিন্ন ম্যাট্রিমোনিয়াল ওয়েবসাইট রয়েছে- Taslima Marraige Media, borbodhu.com, BD marriage.com, 99marraigeguru.com, Shaadi.comপ্রভৃতি। এসব ওয়েবসাইট ছাড়া আর ও অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে। আপনি যদি ম্যারেজ ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে বর বা কনে খুঁজে নিতে চান তবে তাদের ওয়েবসাইটে ফ্রি রেজিষ্ট্রেশন করে নিতে পারেন। হয়তো এর মাধ্যমে আপনার পছন্দের পাত্র /পাত্রীর সন্ধান পেয়ে ও যেতে পারেন।

Source: Fcebook/bdmarriage

 

বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করতে Wedding Planner:

বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হচ্ছে একটা চ্যালেঞ্জ। খাবার মেনু, বিয়ের কার্ড, যানবাহনের ব্যবস্থা, ছবি তোলা, ভিডিও করা আরো অনেক কিছুর ব্যবস্থা করতে হয়। অনেকের পক্ষে একা এত কিছু সামলে নেয়া অসম্ভব হয়ে পড়ে। কিন্তু তাদের এই অসম্ভব কে সম্ভব করে এই সব দায়িত্ব একাই নিয়ে কাজ করছে ওয়েডিং প্লেনার প্রতিষ্ঠানগুলো। আপনি যদি চান রাজকীয় ভাবে অথবা থিম অনুযায়ী  আপনার অনুষ্ঠানটি সম্পন্ন করতে তাহলে অবশ্যই ওয়েডিং প্লেনারের চেয়ে ভালো কিছু হতে পারে না। বিয়ের কার্ড থেকে শুরু করে বিয়ে শেষ হওয়া পর্যন্ত সব কিছুর দায়িত্ব তাদের। এই প্রতিষ্ঠানগুলো প্যাকেজের ভিত্তিতে কাজ করে থাকে। তবে বলে রাখা ভালো এক্ষেত্রে আপনাকে মোটা অংকের টাকা খরচের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। নিজে কিছু ওয়েডিং প্লানার প্রতিষ্ঠানের নাম, ঠিকানা সহ দেওয়া হলঃ

১। শাহজাহান ওয়েডিং প্ল্যানারমোবাইল নম্বর : ০১৭৫০০৮৪৩১০

২। ফ্যান্টাসি ডল, মকবুল প্লাজা, ১০/৩ আরামবাগ, মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা, মোবাইল নম্বর: ০১১৯০৯৬৮৮৯৭

৩। স্পটলাইট ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডপ্লট-১৮০, ব্লক-বি, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, ঢাকা, মোবাইল নম্বর  : ৮৮৪৫১৩৩

৪। ওয়েডিং প্ল্যানারআজিজ সুপার মার্কেট (১১ তলা), শাহবাগ, ঢাকা, মোবাইল নম্বর: ০১৬৭৪৪৯৯৮৭৫, ০১৭১৭৪৬০৬৪১

৫। ইভেন্ট সিটিবাড়ি-৪৫২, সড়ক-৩১, নিউ ডিওএইচএস, মহাখালী, ঢাকা, মোবাইল নম্বর : ৮৭৫২৫৭৩

৬। এলিগ্যান্ট ম্যাজিক ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডবাড়ি-৭, ব্লক-এফ, সাংবাদিক আবাসিক এলাকা, মিরপুর-১১, ঢাকা, মোবাইল নম্বর : ০১৭৫৮৪৬৪৫৬০, ০১৭৭৬৩৫৩৪৪৮

৭। ইভেন্ট ফ্যাক্টর২৯/১৬৯ লরেন ভিস্তা, এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা, মোবাইল নম্বর  : ০১৭১১০৮২৪৫০

৮। এ ওয়ান মিডিয়া৪২/২ পরীবাগ রোড, বাংলামোটর, ঢাকা, মোবাইল নম্বর : ০১৯১১৩১৩১৪১

৯। ফিউশন ইভেন্টস সলিউশন৬৫ গৌরনদী হাউস, পশ্চিম ধানমণ্ডি, শংকর, ঢাকা, মোবাইল নম্বর  : ০১৯১৫৪১০১৭৪

১০। এইচসিক্সটি২১৪/বি ফকিরাপুল, মতিঝিল, ঢাকা, মোবাইল নম্বর : ০১১৯০৮২৯১৬২

১১। ডিএনএ ইভেন্টস সলিউশন২৪৮/৯/এ/১ খিলগাঁও, সিপাহিবাগ, ঢাকা, মোবাইল নম্বর  : ০১৭৬৮১২০৭০১

১২। অ্যারেঞ্জারসএল/২ ব্লক -ই, কাজী নজরুল ইসলাম রোড, মোহাম্মদপুর, ঢাকা, ফোন নম্বর : ৯১০৩১৬৮

১৩। ইভেন্ট জকি, ২১৮ সাহেরা সার্কেল, এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা। ফোন নম্বর : ৮৬৩১৩১৬

১৪। ফোর্স হলিডেবাড়ি-৩৭, এভিনিউ-১, রোড-১১, ব্লক-বি, মিরপুর-১২, ঢাকা। ফোন নম্বরঃ ৯০১৩২২৭

Source : bdphotographers

 

বিয়ের জিনিসপত্র কোথায় পাবেন?

উচ্চবিত্ত পরিবারের মানুষ আজকাল বিয়ের জন্য ওয়েডিং প্লানার প্রতিষ্ঠানের উপর নির্ভরশীল। কিন্ত মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষ ও তাদের বিয়ের অনুষ্ঠান নিজেদের ব্যবস্থাপনায় আয়োজনে কোন ত্রুটি রাখেন না। এবার সমাজের যে কোন শ্রেনীর মানুষের  বিয়ের জিনিস পত্র কোথায় কিভাবে পাবেন নিম্নে আলোচনা করা হল-

 

 বিয়ের কার্ডঃ 

বিয়ের প্রথম কাজটি শুরু কার্ড দিয়ে নিমন্ত্রণ করার মাধ্যেমে। আপনি যদি আপনার পছন্দ অনুযায়ী কার্ড বানিয়ে নিতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই দু সপ্তাহ আগে অর্ডার করতে হবে। আপনি চাইলে নিজের করা ডিজাইন দিয়ে কার্ড বানিয়ে নিতে পারেন। এখন আবার বিয়ে, গায়ে হলুদ, বৌভাত প্রতিটা অনুষ্ঠানের আলাদা কার্ড করতে দেখা যায়।

কোথায় পাওয়া যাবে কার্ডঃ 

১। আইডিয়াল প্রোডাক্টস্ঃ

স্বনামধন্য এই প্রতিষ্ঠান থেকে আপনি কার্ড তৈরী করে নিতে পারেন। আপনাকে অর্ডার করতে হবে ৭ দিন আগে। এতে আপনার কার্ড এর ডিজাইন অনুযায়ী দাম পড়বে ১০ টাকা থেকে শুরু করে ৪০০ টাকা পর্যন্ত।

ফোন নম্বরঃ ৮৬৩১৮৯৯

২। আজাদ প্রোডাক্টস্ঃ 

এখান থেকে আপনার কার্ড বানাতে হলে আপনাকে কমপক্ষে ৩ দিন আগে অর্ডার করতে হবে। এক্ষেত্রে আপনার খরচ হবে কার্ড এর উপর নির্ভর করে ১০ টাকা থেকে ৩৫০ টাকা।

ফোন নম্বরঃ ৯৫৫৯৩৯৯

বিয়ের যত সাজ-সজ্জাঃ 

গায়ে হলুদ এর অনুষ্ঠান থেকেই মূলত বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার যাত্রা শুরু হয়। বর – কনের পোশাক, ডালা, স্টেজ, গহনা ইত্যাদি।

পোশাকঃ 

গায়ে হলুদে পূর্বে কনের ক্ষেত্রে হলুদ রং এর শাড়ি এবং বর এর জন্য সাদা রং এর পাঞ্জাবির প্রচলন থাকলেও এখন সবাই এই প্রচলিত ধারণা থেকে বেরিয়ে বিভিন্ন রং এর পোশাক নির্বাচন করে থাকে। শাড়ির মান এর উপর ভিত্তি করে দাম পড়বে ২৫০০-১২০০০ এর মধ্যে। তবে ইদানিং অনেকেই কনের পোশাক হিসেবে লেহেঙ্গা ও পছন্দ করে থাকেন। গায়ে হলুদ, বিয়ে এবং বৌভাত এর জন্য আপনি নিম্নোক্ত শপিং সেন্টারে যেতে পারেন।

১। মিরপুর বেনারসি পল্লী। (শাড়ি)

২। বসুন্ধরা সিটি (লেভেল ৩, ৪) শাড়ি,  লেহেঙ্গা।

৩। নিউ মার্কেট  (লেহেঙ্গা, শাড়ি)

Source : Facebook

গায়ে হলুদের বর এর পাঞ্জাবির জন্য যেতে পারেন এলিফ্যান্ট রোড।  এছাড়া লুবনান, ভাসাবি, শপার্স ওয়ার্ল্ড, জারা তেও পাওয়া যাবে। এক্ষেত্রে দাম পড়বে ৩০০০-১০০০০ টাকা। এবং বিয়ের সুট এবং শেরোয়ানীর জন্য যেতে পারেন এলিফ্যান্ট রোডের বিখ্যাত দোকান সানাই তে।

গহনাঃ 

কনের গায়ে হলুদের গহনার জন্য কাচাঁ ফুলের পাশাপাশি কৃত্তিম ফুল ও অনেক জনপ্রিয়। অনলাইন পেজে ও পাওয়া যাচ্ছে কৃত্তিম ফুল। এক্ষেত্রে ওয়েডিং বাই নুসরাত সবচেয়ে জনপ্রিয়। এছাড়া শাহবাগ, গাউছিয়া, এলিফ্যান্ট রোড ও গহনা পাওয়া যায়। আপনি চাইলে ডিজাইন পছন্দ করে ও অর্ডার দিয়ে বানাতে পারেন। বিয়ের গহনার ক্ষেত্রে অনেকেই বংশ পরম্পরায় নানী-দাদীর  গয়না পেয়ে বিয়ের জন্য রেখে দেন। তবে বর্তমানে সবাই চায় ফ্যাশনেবল গহনা। কেউ আবার ডায়মন্ড এর গয়নাও কিনতে আগ্রহী হন। তারা যেতে পারেন ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড এ। অথবা আপনার পছন্দের ডিজাইন দিয়ে গহনা বানানোর জন্য যেতে পারেন আপন জুয়েলার্স, আমিন জুয়েলার্স এ।

ইদানীং ভারি অরনামেন্টই বউদের প্রথম প্রছন্দ, বিশেষ করে এটি যদি জামাই দেয় তাকে

বিয়ের  ডালাঃ 

গায়ে হলুদ কিংবা বিয়ের যা ই হোক না কেন ডালার জন্য যেতে পারেন নিউ মার্কেট, বসুন্ধরা সিটি, কাটাবন এবং এলিফ্যান্ট রোড। এসব ডালা পাওয়া যাবে ৪০০-৮০০ টাকার মধ্যে। ডিজাইন এবং চাহিদা অনুযায়ী এর দাম বাড়তে অথবা কমতে পারে।

ফুলের ডেকোরেশনঃ 

বিয়ের ডেকোরেশন আপনি যেভাবে চাচ্ছেন ঠিক সেভাবেই করিয়ে নিতে পারেন দক্ষকর্মী দ্বারা। আপনার স্টেজ ডেকোরেশন, বাসর ঘর, হলুদের গয়না, বিয়ের গেইট এই সব কিছুর একসাথে প্যাকেজ পেতে পারেন। অথবা আলাদা ও নিতে পারেন। এক্ষেত্রে হলুদ এবং বিয়ের স্টেজ খরচ পড়বে ডিজাইন এবং চাহিদা অনুযায়ী ৫০০০-৮০০০০ টাকা। বাসর ঘর সাজাতে ৫০০০-৭০০০০ টাকা পড়বে। এবং বরের গাড়ি পড়বে ৩০০০-৫০০০০ টাকায়।

ফুলের ডেকোরেশন করে এমন কিছু দোকানের নাম দেওয়া হলঃ

১। পুষ্পনীড়রোড-৩৫, বাড়ি-১৫/বি, গুলশান ২, ঢাকা-১২১২। যোগাযোগঃ ফোন নম্বর: ৮৮২৩৪০১, ৯৮৯৮৯৭৯ মোবাইল : ০১৭১১-৯৩৪০৫৩, ০১৭১৫-৮৭০৭৭৮

২। দ্য সারথি, বড়ুয়া বাগানবাড়ি, খিলক্ষেত, ঢাকা। মোবাইল নম্বর : ০১৮১৮৩৫৩৫১৮, ০১৭২০০০৭৪৩৬

৩। ইকেবানা, বাড়ি-৩১, রোড-২০, ব্লক-কে, বনানী, ঢাকা। মোবাইল : ০১৭৩১৮১৪৮৮৫

৪।ফ্লাওয়ার হ্যাভেন, জাহিদ প্লাজা, নর্থ সি/এ, গুলশান এভিনিউ, গুলশান, ঢাকা-১২১২। ফোন নম্বর  : ৯৮৯০২৫৭ মোবাইল : ০১৭১২২৯০৫৬৪

৫। শিউলি পুষ্পালয়,  খামারবাড়ি ফুলের মার্কেট। মোবাইল নম্বর  : ০১৯২১৪৭৭৯২৬

৬। মাহদী পুষ্পবিতান, ফার্মগেট, ঢাকা। মোবাইল নম্বর  : ০১৭১১০৬০৮৬১ ০১৭১৬২৮২০২০

৭। মাধবী পুষ্পকুঞ্জ, শাহবাগ, ঢাকা। ফোন নম্বর : ৮৬১৫৬৩৫, মোবাইল : ০১৭১২৮০১৫৫৮

৮। কবরী পুষ্পবিতান, শাহবাগ, ঢাকা। ফোন নম্বর: ৯৬১৩৬৫৪, মোবাইল : ০১৭১৫৫৪৬৯৫৪

বিয়ের বাহন-বাজনাঃ

শৌখিন মানুষগুলো তাদের অনুষ্ঠানে ভিন্নতা রাখতে পছন্দ করেন। বিয়ের বাহন এর জন্য ও খুঁজেন ব্যাতিক্রম  কিছু। অনেকেই বিয়ের বাহন হিসেবে ঘোড়ার গাড়ি কে বেছে নেন। এক্ষেত্রে প্রতিটি টমটম এক দিনের জন্য পড়বে ৩ হাজার থেকে ৮ হাজার টাকা। টমটম ভাড়া নেওয়ার জন্য আপনাকে যেতে হবে ঢাকার গুলিস্তান ও নিউ সেক্রেটারিয়ট রোডের ফুলবাড়িয়াতে।

আপনি যদি পালকী ব্যবহার করতে চান বিয়েতে তাহলে আপনাকে যেতে হবে ঢাকার হাজী ওসমান গণি রোড আলু বাজারের ব্যান্ড পার্টির দোকানগুলোতে। এখানে আরও পাওয়া যাবে ব্যান্ডপার্টি এবং সানাই। এক্ষেত্রে আপনার খরচ হবে ৪০০০-১২০০০ টাকা।

ভিডিওগ্রফি ও ফটোগ্রাফিঃ 

বর্তমানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে প্যাকেজে এক সাথে  ভিডিওগ্রাফি, ফটোগ্রাফি, সিনেমাটোগ্রাফি এবং ওয়েডিং ফিল্ম বানিয়ে থাকে। নিম্নে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এর নাম এবং বিস্তারিত তুলে ধরা হলো-

ওয়েডিং ডায়েরিঃ  এখানে ফটোশুটের প্যাকেজ পাওয়া যাবে ১৫০০০-৩০০০০ মধ্যে। প্রি-সিনেমা বানাতে খরচ পড়বে ৫০০০০ টাকা। প্রিমিয়ার এবং সিগনেচার প্যাকেজ ৪০০০০-২০০০০০ টাকা পর্যন্ত। এর সাথে ফটোবুক, স্পেশাল এডিটেড ছবি ফ্রি পাবেন।

মোবাইল নম্বরঃ ০১৯৭৫৫৫৬৬৩৩

ওয়েবসাইটঃ www.weddingdiary.com.bd

ড্রিম ওয়েভারঃ এই প্রতিষ্ঠানের প্যাকেজ শুরু ১২০০০-২০০০০ টাকা পর্যন্ত। স্ট্যান্ডার্ড প্যাকেজ ৩৫০০০-৪০০০০ টাকা। স্টোরি টেলিং  ফটোশুট এবং মেমোরি বুক ও আছে। আরো অনেক প্যাকেজ এবং অফার জানতে যোগাযোগ করুন নিম্নের দেওয়া ওয়েবসাইট এ।

মোবাইল নম্বরঃ ০১৬৭০০৭৮৯৫৩

ফেইসবুক পেইজঃ https://m.facebook.com/dreamweaver.com.bd

ওয়েডিং চ্যাপেলঃ এই প্রতিষ্ঠান এ পাবেন সাতটি প্যাকেজ। প্যাকেজ এর ভিন্নতা অনুসারে খরচ পড়বে ১২০০০-১৫০০০০ টাকা। ভিডিওগ্রাফি ও ওয়েডিং মুভি বানাতে তে খরচ পড়বে ১২০০০-৪০০০০ টাকা।

মোবাইল নম্বরঃ ০১৭১৬৪৮০৫০৩

ফেইসবুক পেইজঃ http://www.facebook.com/weddingchapel.bd

মেস্টিক মোমেন্টঃ এখানে পাবেন ছয়টি প্যাকেজ। প্যাকেজ অনুযায়ী খরচ হবে  ১২০০০-৩৮০০০ টাকা। ভিডিওভগ্রাফিতে খরচ পড়বে ১৫০০০ টাকা।

মোবাইল নম্বরঃ ০১৭১৭৪৯২৫৬৬

ওয়েবসাইটঃwww.mysticmomentsphilosophy.com.au

 

বিয়ের ভেন্যুঃ   

বিয়ের অনুষ্ঠান বাসা বাড়িতে করা সম্ভব হয়ে ওঠে না। তাই সবাই চায় সুন্দর পরিবেশে অনুষ্ঠান সম্পন্ন করতে। এক্ষেত্রে বিয়ের ভেন্যু হিসেবে কমিনিউটি সেন্টার ও বেছে নিতে পারেন। আপনি এখন অনলাইনে ও আপনার ভেন্যু বুকিং দিতে পারবেন। VENUE.COM.BD তে গিয়ে আপনার পছন্দের ভেন্যু নির্বাচন করতে পারবেন।

কয়েকটি ওয়েডিং ভেন্যুর তালিকা দেওয়া হলঃ

হোটেল লা মেরিডিয়ানঃ  প্লাটিনাম ও ডায়মন্ড ওয়েডিং প্যাকেজ এর যে কোন একটি  অফার আপনি গ্রহন করতে পারেন এই ভেন্যু তে।

মোবাইল নম্বরঃ ০১৭৬৬৬৩৪২৮

অফিসার্স ক্লাবঃ ঢাকার বেইলী রোডে অবস্থিত অফিসার্স ক্লাবে আছে ৩ টি হল রুম যার প্রতিটি রুমে আসন ব্যবস্থা ৩০০ জন করে। এবং একসাথে  ৬০০ জনের খাওয়ার সুব্যবস্থা আছে। আপনি যদি এখানে বুকিং দিতে চান তাহলে আপনার ব্যয় হবে ১ লক্ষ টাকা থেকে ৩১২০০০ টাকা।

মোবাইল নম্বরঃ ০১৯১১৯৮০৩১৬

রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনঃ  বিয়ের ভেন্যুর জন্য অন্যতম একটা স্থান। অত্যাধুনিক হলরুম এবং অনেক ধরনের ওয়েডিং প্যাকেজ পাবেন এখানে।

যোগাযোগ করতে পারেনঃ ০১৭৩০০৮৯১২৮।

প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁওঃ পাচতারকা এই হোটেলে আপনি ভেন্যুর পাশাপাশি ওয়েডিং প্লানিং সহ সব ধরনের সহযোগিতা পেতে ফোন, ইমেইল অথবা অনলাইনের মাধ্যমে কিংবা সরজমিনে গিয়ে বুকিং দিতে পারেন।

মোবাইল নম্বরঃ ০১৭৩০০৮৯১২৮

বসুন্ধরা কনভেনশন হলঃ ২০০০ সালে প্রতিষ্ঠিত হওয়া এই হলের ধারণ ক্ষমতা ২০০০ জন। দুই শিফটে হলভাড়া পাওয়া যায়। অনুষ্ঠানের অন্তত ১০ দিন আগে বুকিং মানি দিয়ে অর্ডার কনফার্ম করতে হয়। এক্ষেত্রে হল ভাড়া সহ খরচ পড়বে ২৫০০০০-৩০০০০০ টাকা।

ক্যাটারিং সার্ভিসঃ

বিয়ের সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং কাজ হচ্ছে অতিথি আপ্যায়ন করা। এসব ঝামেলা এড়াতে আপনি ক্যাটারিং প্রতিষ্ঠান কে খাবারের দ্বায়িত্ব দিতে পারেন। নিচে কিছু প্রতিষ্ঠানের নাম ও নম্বর দেওয়া হল-

১। মাস্টার শেফ সুব্রত আলীমোবাইল নম্বরঃ ০১৭১১৪৩৯৩৯৯, ০১৭১১৫৩৬৯৯৮

২। বিয়ে বাড়ি ক্যাটারিং সার্ভিস, শাহবাগ এর আজিজ মার্কেটের ১১ তলায় প্রতিষ্ঠানটি অবস্থিত। মোবাইল নম্বরঃ ০১৭১৭৪৬০৬৪

৩। ফখরুদ্দিন ক্যাটারিংমোবাইল নম্বরঃ ০১৭১৫৫৫৩৩৩০, ফোন নম্বর: ৯৩৪৩৪৫৬

৪। স্পাইস ক্যাটারিং, মোবাইল নম্বরঃ ০১৯১১৬৬১১৮৫

৫। নান্না বিরিয়ানি হাউজ, মোবাইল নম্বরঃ ০১৭১৬৪২৫০৭৮, ০১৭৫২৮০১৩১৩।

বিয়ে নিয়ে মানুষের আগ্রহের কমতি নেই। একটু ভিন্ন ভাবে নিজের অনুষ্ঠান সম্পন্ন করতে চায় সবাই। এজন্য চাই বাড়তি আয়োজন। যারা বিয়ে করবেন বলে ভাবছেন আর যারা প্রস্তুতি নিচ্ছেন জীবনের সবচেয়ে সুন্দর অনুভুতি কে স্মরনীয় করে রাখতে তাদের  উপরোক্ত আলোচনা সকল আয়োজন কে আরো স্পেশাল করতে সাহায্য করবে।     

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *