image1

২৪শে জানুয়ারি থেকে শুরু করে ৮দিন ব্যাপি ফেস্টিভালটি অনুষ্ঠিত হবে ঢাকার পাঁচটি জায়গায়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি শওকত ওসমান অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। বিকেল ৪টায়, প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করেন।

৩৯ দেশের ১৭৯টি চলচ্চিত্র দেখানো হবে ৫টি ভেনুতে, যা সকলের জন্য উন্মুক্ত। মুলত চলচিত্রগুলি শিশুকেন্দ্রিক। তার পাশাপাশি স্টোরি টেলিং, ওয়ার্কশপ ইত্যাদি কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।

৪৮টি থেকে ১৮টি চলচিত্র দেখানো হবে “বাংলাদেশ চিল্ড্রেন ফ্লিমিমেকার” এর পর্দায়। সেখান থেকে শুধুমাত্র ৫টি চলচ্চিত্রকে পুরুষ্কৃত করা হবে।

বুঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শতবছর উপলক্ষে এবছর একটি নতুন বিভাগ যোগ হয়েছে। তা হলো “বঙ্গবন্ধু থ্রূ মাই লেন্স” যার মাধ্যমে জাতির পিতাকে তুলে ধরা হবে।

২০০৮ থেকে এই ফেস্টিভেলটি অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এবার প্রায় ১৫০জন শিশু কমিটির সাথে কাজ করছে। এটি চলচ্চিত্রকারদের পাশাপাশি শিশুদের বৃদ্ধিলাভে ও মানসিক বিকাশে বেশ গুরুত্বপূর্ণ। তাই প্রতিবছরই এটি অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে বৃহৎ আয়োজনের মাধ্যমে।

Justin Matthias

BY:

[email protected]

Open minded, Passionate, Self Confident. A strong will to achieve anything .Web content writer and football lover. Guitar and chess are also my interests. Spreading love to the world through...

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *